ভারতে বাংলাদেশি নারী হত্যার ঘটনায় হাইকোর্টে রিট Read more at: http://www.dailyinqilab.com/details/11162/%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%82%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B6%E0%A6%BF-%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%80-%E0%A6%B9%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%98%E0%A6%9F%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A7%87-%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%9F Copyright Daily Inqilab

স্টাফ রিপোর্টার : ভারতের চলন্ত ট্রেনে বাংলাদেশি নারী নার্গিস আক্তারকে ধর্ষণ করে হত্যার ঘটনায় ময়নাতদন্ত করতে এবং কাগজপত্র সরবরাহের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। গতকাল (বুধবার) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় নিহতের মামী রাহেলা বেগমের পক্ষে রিটটি দায়ের করেন বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী অ্যাডভোকেট এলিনা খান। রিটে স্বরাষ্ট্র সচিব, খুলনার জেলা প্রশাসক ও সোনাডাঙ্গা থানার উপ-পরির্দশকসহ চারজনকে বিবাদী করা হয়েছে। আগামী রোববার বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি আবু তাহের মো: সাইফুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ। রিটে নার্গিসের লাশের পোস্ট মর্টেম করতে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। তাকে ধর্ষণের ঘটনায় পোস্ট মর্টেম হয়েছে কি-না, কোনো অভিযোগ করা হয়েছে কি-না, তা জানতে সব কাগজপত্র আবেদনকারীদের সরবরাহ করতে নির্দেশনাও চাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন রিটাকারী। উল্লেখ্য, গত ২০ এপ্রিল বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে ভারতের ট্রেনে বাংলাদেশি নারী ধর্ষিত এমন শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ পায়। নার্গিসের পরিবার জানায়, নিজের ও জন্মান্ধ মায়ের চিকিৎসার জন্য ১০ বছর বয়সী মেয়েকে নিয়ে খুলনার নার্গিস বেগম গত ৯ মার্চ বৈধপথে ভারত যান। চিকিৎসা শেষে আজমির শরিফও ঘুরে আসার ইচ্ছা ছিল তাদের। গত ১০ মার্চ তারা হাওড়া স্টেশন থেকে দিল্লির উদ্দেশে ট্রেনে ওঠেন। ট্রেনটি কানপুর পৌঁছলে কয়েকজন যুবক দিল্লি এসে গেছে বলে তাদের ট্রেন থেকে নামিয়ে আনে। পরে নার্গিসকে প্লাটফর্মে আটকে রেখে তার মা-মেয়েকে জোর করে ওই ট্রেনে তুলে দেয়া হয়। অন্ধ মা-মনিমালা সাংবাদিকদের বলেন, রাত ৩টার দিকে ট্রেন দিল্লিতে পৌঁছে গেছে বলে কয়েকজন যুবক তাদের নামতে বলে। তিনজনই নেমে গেলেও একটি ব্যাগ ভুলে রেখে আসায় তা আনতে আবার ট্রেনে উঠেছিলেন নার্গিস। তখন কয়েকজন যুবক ওর মুখ চেপে ধরে ট্রেনের গার্ডের রুমে নিয়ে যায়। এরপর ট্রেন ছেড়ে দিলে পরিবারের সদস্যদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন নার্গিস। এরপর কয়েকদিন কানপুর স্টেশনে বসেই কাঁদতে কাঁদতে বিভিন্ন জনের কাছে মেয়ের খবর চাইতে থাকেন অন্ধ মনিমালা, সঙ্গে ছিল তার ৯ বছর বয়সী নাতনী। পরবর্তী সময়ে ভারতীয় লোকজনের সহায়তায় বাংলাদেশে ফেরেন নার্গিসের মা। তবে বাংলাদেশ কিংবা ভারতের পুলিশের কাছ থেকে ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। কোথায় কিভাবে মৃত্যু হয়েছে, সে বিষয়েও তথ্য পাওয়া যায়নি। নার্গিসের পরিবার গত ১৯ মার্চ সোনাডাঙ্গা পুলিশের কাছ থেকে জানতে পারেন, নার্গিস মারা গেছেন। তার মরদেহ ভারতের উত্তর প্রদেশের বাধান রেল স্টেশনের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। গত ২০ এপ্রিল বেনাপোল স্থলবন্দরের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে নার্গিসের মরদেহ বুঝে পান তার পরিবার। নার্গিস আক্তার (৩৪) খুলনার সোনাডাঙ্গা উপজেলার কেডিএ অ্যাপ্রোচ রোড এলাকার সাহাবুদ্দিনের মেয়ে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ভারতে চলন্ত বাস ও ট্রেনে একাধিক ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে, যা সব মহলে ব্যাপক আলোড়নও তোলে। – See more at: http://www.dailyinqilab.com/details/11162/%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%82%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B6%E0%A6%BF-%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%80-%E0%A6%B9%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%98%E0%A6%9F%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A7%87-%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%9F#sthash.KKPyDPFl.dpuf

Read more at: http://www.dailyinqilab.com/details/11162/%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%82%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B6%E0%A6%BF-%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%80-%E0%A6%B9%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%98%E0%A6%9F%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A7%87-%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%9F
Copyright Daily Inqilab

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s